Friday , October 19 2018
Home / Blog / যে নিজের ব্যাগ এর দায়িত্ব নিতে পারেনা সে কিভাবে দেশের দায়িত্ব নিবে?

যে নিজের ব্যাগ এর দায়িত্ব নিতে পারেনা সে কিভাবে দেশের দায়িত্ব নিবে?

জানালা দিয়ে বাইরে তাকিয়ে দেখি একটা ছেলে যে ক্লাস ফোরে পড়ে সে রাস্তা দিয়ে হেটে যাচ্ছে সম্ভবত প্রাইভেটে। যেতেই পারে তাতে বলার কী আছে? হ্যাঁ যাচ্ছে কিন্তু আমি লক্ষ করলাম যে ছেলেটির bag তার কাঁধে নেই, আছে তার মায়ের কাঁধে। এরকম দৃশ্য আমরা সবাই কম-বেশি দেখে থাকি। আমাদের মধ্যে হয়ত ছোটবেলায় অনেকেই এরকম করেছি।

মা হয়ত চায় যে তার ছোট শিশুটির কাঁধে বোঝা না দিতে কারন সে তো মা। আমি যখন ছোট ছিলাম এবং এখনও আমার নিজের ব্যাগ নিজে বহন না করলে ভালো লাগে না। আমি ছোটবেলা অসুস্থ থাকলেও চেষ্টা করতাম সবসময় নিজের ব‍্যাগ নিজে বহন করতে। এ তো গেল আমার কথা। এখন মূল কথা হচ্ছে এই আমাদেরকে বাচ্চাদের নিজের ব‍্যাগ নিজের কাঁধে দিতে হবে। বুঝাতে হবে তাদেরকে, বুঝতে হবে আমাদেরকেউ।

প্রত্যেকটা যুদ্ধের জন্যই প্রয়োজন হাতিয়ার। আর যে তার নিজের হাতিয়ার বহন করতে পারবে না সে কিভাবে নিজে জয় আনবে? পড়াশোনা করার জন্য, ভালো রেজাল্ট করার জন্য আমাদের হাতিয়ার হচ্ছে বই-খাতা-কলম ইত্যাদি। এখন একজন ছাত্র বা ছাত্রী যদি এগুলো বহনে পরনির্ভরশীল হয় তাহলে সে কিভাবে জীবনের যুদ্ধে সফল হবে? কিভাবে নিজের দায়িত্ব নিবে? কিভাবে দেশের দায়িত্ব নিবে?
সেটা আমার মাথায় আসে না।

এই সম্পূর্ণ লেখাটি ছিল আমার অনুধাবন মাত্র। আমার মতগুলোর সাথে আপনার মত নাও মিলতে পারে। আমার লেখায় ভুল হতে পারে। ভুল হলে আমি শুধু এটা বলবো না যে আমায় ক্ষমা করবেন, এটাও বলব‌ যে আমায় শুধরে দিবেন।

পরিশেষে একটি কথা বলব, সেটা হলো আমার মতের সাথে আপনার মত গুলো মিলুক বা না মিলুক বিষয়টি একটু অনুধাবন করবেন। কারণ আজকের শিশুই তো আমাদের আগামী দিনের ভবিষ্যৎ।

About Fuad Hasan

আমি খুবই সাধারন একজন মানুষ যে কিনা প্রচন্ড কম্পিউটার পাগল । যে নতুন কিছু করতে চায়। বিশাল পৃথীবির জ্ঞান ভান্ডার হতে কিছু জ্ঞান অর্জন করতে চায়। অর্জিত জ্ঞান হতে কিছু শেখাতেও চায়।এবং মুসলিম হিসেবে, বাংলাদেশী হিসেবে, বাঙ্গালী হিসেবে এবং মানুষ হিসেবে যেসব দায়িত্ব আছে তা পালন করতে চায়।

Check Also

আল্লাহ যা করেন ভালর জন্য়ই করেন

সমুদ্রের মাঝখানে এক জাহাজ প্রচন্ড ঝড়ের মধ্যে পরে লন্ডভন্ড হয়ে গেল। সেই জাহাজের বেঁচে যাওয়া …

3 comments

  1. tumar kotha ta vul… amadar dase a class nursery thaka 2 ar cecudar tadat baba ma odar bag nejar kadha na… kuntu class 3 and ar por joto oro hota thaka tara tadar bag nejai khdga na…. akon main kotha bole .. jara oi nursery , KG ,KG1, 2 ta pora tadar valo mon dar ato khal tha ka na… odar oi choto mathi nejar dieto neja hau a .. ai dase ar dieto nau a ai rokom boro boro kotha odar buja no uchit na … negar bag neja na kadha tular blog na lekha tumar lakha ucit celo ama dar primary and KG school ar book ar poreman kore a dau a .. ara ato vare bag kadha na ata uchit na.. amadar dasa primary and kg school a ja sob faltu faltu book and techer asa oi gula ka ne kesu kora uchi … ta hola dash ar dieto neta ora school tha ka amni tai sek ba

    • Thank for comment.
      Tomake k bolse ze class 3 er por er koso student er bag tader ma baba ra bohon kore na… bohon kore…. because ami arokom onekki dakesi..
      Tomi bolla book er ojon besi… are vai ojon besi ata to manlam kinto koyzoner boiya full book nay amar sondeo ase.
      r e vai class 1,2 er boy koyta take. may be 3 ta…. ata atotao vari na ze seta oo bassa bohon korte parbe. akon sekane jodi dozon kanik gaid take tahole to tar ojon beshi hobei… r arekta kota seta holo amio to class 1,2 par koresi.. boi to amarao bohon koresi…. oneki nijer boi nije bohon kore prosno hosse tara kivabe kore????
      akon ami je vabe bojate sayasi seta hoyto tomi bojo ni… kinto tomar bibeker kase akto prosno koira deko ze… akjon student er bag student er bohon kora osit naki gurgian er… akto sinta korlei tomi paba… amar point of view r tomar point of view nao milte pare kinto question ta tomar bibeke kase koro kinto..
      and agin thanks for your valuable comment.

  2. দুঃখিত। একমত হতে পারলাম না।
    আমাদের বর্তমান শিক্ষা ব্যাবস্থা সম্পর্কে আমাদের সবারই বেশ ভালো ধারনা রয়েছে। আমরা জানি যে কিন্ডারগার্ডেন স্কুলগুলিতে সেই ক্লাস ওয়ান থেকেই বাচ্চাদের উপর অস্বাভাবিক পরিমানে বইয়ের বোঝা চাপিয়ে দেয়া হয়। বোর্ডের নিরধারিত বইয়ের পাশাপাশি আরও না না রকম বই, গাইড, প্রত্যেক বিষয়ে আলাদা নোট খাতা সবমিলিয়ে প্রাথমিক পর্যায়ে অধ্যয়নরত একজন শিক্ষার্থীর ব্যাগের ওজন অস্বাভাবিক পরিমাণে বেশী হয় যা তার পক্ষে বহন করা কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। আর মূলত এই কারনে প্রায়শই বাবা-মা অথবা অন্য কাউকে তাদের ব্যাগ বহন করতে দেখা যায়। কোন বাবা-মা নিশ্চয়ই চাইবেনা তার সন্তান প্রতিদিন এই পাহারসম বোঝা কাধে করে স্কুল-প্রাইভেট এ যাক। তারা জানে যে এভাবে বেশিদিন চললে তাদের সন্তানের শরীরে খারাপ প্রভাব পড়বে। মেরুদণ্ডের বিভিন্ন রোগ দেখা দেবে। কিছুদিন আগে এই ব্যাপারে আদালতে মামলাও করা হয়েছে। তাই আমার মনে হয়না যে নিজের শরীরের ক্ষতি করে দেশে ও নিজের ভবিষ্যৎ দায়িত্ব গ্রহনের কথা সমীচীন হবে।
    ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.